দানবীয় পাখি সম্পর্কে নতুন তথ্য আবিস্কার !

অবশেষে বিজ্ঞানীরা পৃথিবীর প্রাচীনতম পাখির একটি সুস্পষ্ট প্রতিকৃতি তৈরি করতে সক্ষম হয়েছেন। যার মাধ্যমে পৃথিবীর প্রাচীনতম প্রজাতির পাখিটি দেখতে কি রুপ ছিল টা জানা গেল।article-0-1A461055000005DC-714_634x469

ম্যানচেষ্টার ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক নতুন কিছু রাসায়নিক পরীক্ষার মাধ্যমে ১৫০ মিলিয়ন বছর আগের এই প্রজাতির পাখিটির পালকের আকার, ধরণ ও বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে অবহিত হয়েছেন। গবেষণায় দেখা গেছে, এই প্রজাতির পাখিটির পালক কিছুটা হালকা রঙের এবং কিনারার দিকে কিছুটা গাড়। বিজ্ঞানীরা রাসায়নিক অনুসন্ধানের মাধ্যমে এই দানবীয় প্রজাতির পাখিটির ফসিল আবিস্কার করেন।

গবেষক দলটির অন্যতম সদস্য Dr. Phil Manning জানান, ” এই আবিষ্কারটি পাখির পালকের বিবর্তন সম্পর্কে আমাদের গবেষণা কয়েক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে।”

মাত্র কয়েক বছর আগেও বিজ্ঞানীদের ধারনা ছিল, বেশিরভাগ দানবীয় পাখির হাড় ও টিস্যু বিভিন্ন খনিজের মাধ্যমে প্রতিস্থাপিত হয়ে গেছে। সম্প্রতি দু’টি আধুনিক রাসায়নিক পদ্ধতির মাধ্যমে দানবীয় পাখি ও এর পালক সম্পর্কে অনেক অজানা তথ্য আবিষ্কৃত হয়েছে।

এর একটি পদ্ধতি হচ্ছে, মেলোনোসোম এর আবিস্কার। যার মাধ্যমে ফসিলের মধ্যে অবস্থিত অণুবিক্ষনিক পিগমেনট বিজ্ঞানীদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এই পদ্ধতির কার্যকারিতা সম্পর্কে Dr. Manning বলেন, ” এই নতুন পদ্ধতির রাসায়নিক অনুসন্ধানের মাধ্যমে দেখা গেছে, পালক গুল হালকা রঙের এবং কিনারা থেকে উপরের দিকে কিছুটা গাড় রঙের।” article-0-1A46103F000005DC-787_634x612

উল্লেখ্য, এই পর্যন্ত দানবীয় পাখির মাত্র ১১ টি ফসিল আবিস্কার করা সম্ভব হয়েছে। যার সবচেয়ে পুরনোটি প্রায় ১৫০ মিলিয়ন বছর আগের।

 

Check Also

জলবায়ু পরিবর্তনঃ যে ৯ টি কারণে ২০১৮ তে আমরা আশাবাদি হতেই পারি!

সাদিয়া লেনা আলফি গেল বছরটি ছিলো জলবায়ুর জন্য বেশ আশঙ্কাজনক। বিষয়টি মূলত ঘটেছে বর্তমান বিশ্বের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *