বৈচিত্র্যময় বৃষ্টি

Here_comes_rain_again# ঋতুবৈচিত্র্য অনুযায়ী বাংলাদেশে দুই মাস বর্ষাকাল। এ সময় যে প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টি হবে_ সেটাই স্বাভাবিক। বৃষ্টিপাত হয়ও। কিন্তু আবহাওয়া ও জলবায়ুর অস্বাভাবিক পরিবর্তনের কারণে এখন আর পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত হয় না। যা-ই হোক, বৃষ্টির কবল থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য একটি অপরিহার্য উপাদান হলো ছাতা। কিন্তু আমরা হয়তো অনেকেই জানি না যে, ছাতা আবিষ্কৃত হয়েছিল শুধু তপ্ত রোদের কবল থেকে নিজেকে রক্ষা করার জন্য।

# আকাশ থেকে যে গতিতে ধরণীর বুকে বৃষ্টি পড়ে, প্রতি ঘণ্টায় তার গতিবেগ কত জানেন? গড়ে বাইশ মাইল!

# পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যেও আছে বৃষ্টিপাত রেকর্ড করার জন্য নানা যন্ত্রপাতি। বৃষ্টিপাতের বার্ষিক রেকর্ড থেকে জানা যায়, লুসিয়ানায় একবার ৫৬ ইঞ্চি বৃষ্টিপাত হয়েছিল!

# পৃথিবীর সব দেশেই কমবেশি বৃষ্টিপাত হয়। তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৫০তম অঙ্গরাজ্য হাওয়াইয়ের কিউইতে বছরের ৩৫০ দিনই বৃষ্টিপাত হয়!

# গবেষকদের তথ্যানুযায়ী, বৃষ্টির পানির চেয়ে বিশুদ্ধ পানি পৃথিবীতে আর একটুও নেই।

# বৃষ্টি হলে বড় বড় ফোঁটা পড়বেই। তবে ২০০৪ সালে সবচেয়ে বড় ফোঁটার বৃষ্টিপাত হয়েছিল ব্রাজিল এবং মার্শাল আইল্যান্ডে। এ বড় ফোঁটার বৃষ্টি পৃথিবীতে আর কোনো দেশে কখনোই হয়নি।

তথ্যঃ ইন্টারনেট

Check Also

এসেছে বাংলার ওয়াইল্ড মেন্টর

এই অ্যাপটির প্রধান উদ্দেশ্য, বিভিন্ন প্রাণির সামগ্রিক বিবৃতি উপস্থাপন। বৈজ্ঞানিক নাম থেকে শুরু করে, কোনো একটি নির্দিষ্ট প্রাণির বিভিন্ন বয়সের ছবি, স্বভাব, আচরণ, আকার-আকৃতি, রঙ, খাদ্য, ইত্যাদি সামগ্রিক ধারণা পাওয়া যাবে এখানে খুব সহজেই। এমনকি পৃথিবীর কোথায় কোথায় এর অস্তিত্ব আছে, সেটিও ম্যাপের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে এখানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *