সিলেটে জলবায়ু পদযাত্রাঃ দুর্নীতিমুক্ত ব্যবহার হোক জলবায়ু তহবিল

নিরাপদ ও পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ নিশ্চিত করতে বৈশ্বিক জলবায়ু পদযাত্রা- এই প্রতিপাদ্যেকে সামনে রেখে একটি উন্মুক্ত আহ্বানের মাধ্যমে সিলেটে বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছে জলবায়ু পরিবর্তন বিরোধী গণ-পদযাত্রা । সিলেট অঞ্চলে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব ও ক্ষতির আশংকা ব্যাক্ত করে বৈশ্বিক ও দেশীয় সকল প্রকার নোংরামী, দূষণ, প্রকৃতি ধ্বংস থেকে বাংলাদেশ ও বিশ্বকে রক্ষা এবং নিরাপদ রাখার শপথে বিভিন্ন সামাজিক-নাগরিক ও পরিবেশবাদী সংগঠন গতকাল শনিবার সুরমা নদীর তীরে ক্বিনব্রিজ চাঁদনীঘাট এলাকা থেকে সকাল ১১টায় এই গণ-পদযাত্রা শুরু করে । নগরীর প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গণ-পদযাত্রা সমাপ্ত করা হয় ।climate march sylhet

আজ ৩০ নভেম্বর থেকে বারো দিনের জন্য জাতিসংঘ জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক ২১তম সম্মেলন বা কপ-২১ শুরু হতে যাচ্ছে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস নগরীতে। সারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকারি প্রতিনিধিসহ, বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ প্রায় ত্রিশ সহস্রাধিক ব্যক্তি এই সম্মেলনে যোগ দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে ।

এই সম্মেলনের বাইরে সারা বিশ্বের সকল এলাকায় স্থানীয় পর্যায়ে লক্ষ লক্ষ সাধারণ জনতা ২৯শে নভেম্বর জলবায়ু গণপদযাত্রায় যোগদান করে তুলে ধরে তাদের জলবায়ু পরিবর্তনজনিত দুঃখ-কষ্ট ও সংকটাপন্ন জীবনের কথা, বেঁচে থাকার লক্ষ্যে তাদের ন্যূনতম প্রয়োজনীয়তার কথা, সবাই তুলে ধরে আমাদের এই সুন্দর প্রিয় পৃথিবীটিকে দূষণ, অনিয়ম, অবিচার ও সম্ভাব্য ধ্বংসের হাত থেকে বাঁচিয়ে রাখার জোর দাবীসমূহ । বাংলাদেশে সিলেট’সহ অন্ততঃ ত্রিশটি স্থানে গতকাল একই সময়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে একই রকম গণ-পদযাত্রা ।climate march sylhet 2

ঢাকায় কেন্দ্রীয় ভাবে প্রায় দশ হাজার মানুষের অংশগ্রহনে আয়োজন করা হয়েছে গণ-পদযাত্রার । সিলেটে গতকাল অনুষ্ঠিত এই গন-পদযাত্রা ২৯ নভেম্বর বৈশ্বিক সমাবেশেরই একটি অংশ । জলবায়ু পরিবর্তন বিরোধী গণ-পদযাত্রা আয়োজক কমিটি, সিলেট-এর উদ্যোগে পৃথক পৃথক ব্যানারে বিভিন্ন সংগঠন এই গণ-পদযাত্রায় অংশগ্রহন করে । বিভিন্ন স্লোগান সম্বলিত বর্ণিল ফেস্টুন, প্লে-কার্ড, ব্যানার নিয়ে নানা শ্রেণী-পেশার মানুষ গণ-পদযাত্রায় অংশগ্রহন করে । “জলবায়ু অভিযোজনে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ঋণ নয়, অনুদান চাই । জলবায়ু অর্থায়নে নিশ্চিত করতে হবে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও নাগরিক অংশগ্রহণ । ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোতে প্রতিশ্রুত জলবায়ু তহবিল প্রদানে আইনী বাধ্যবাধকতা সম্বলিত আন্তর্জাতিক চুক্তি চাই । প্রতিশ্রুত জলবায়ু অর্থ কোন অনুদান বা অনুকম্পা নয় – আমাদের ন্যায্য পাওনা ও অধিকার ।” ইত্যাদি বিভিন্ন দাবি তুলে ধরা হয় পদযাত্রায় প্রদর্শিত প্লে-কার্ডে ।

সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক)- সিলেট, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)-সিলেট শাখা, ট্রান্সপারেন্সী ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ-সিলেট চ্যাপ্টার, প্রানী অধিকার ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষন বিষয়ক সংগঠন প্রাধিকা্‌র, পরিবেশবাদী সংগঠন ভূমিসন্তান-বাংলাদেশ, অঙ্গীকার বাংলাদেশ-সিলেট, সুরমা রিভার ওয়াটারকীপার, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশবাদী সংগঠন গ্রিন এক্সপ্লোর সোসাইটি, বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশন-সিলেট, হিউম্যান ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশন, এথনিক কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট ওর্গেনাইজেশন (একডো), খাসি স্টুডেন্ট ইউনিয়ন-সিলেট, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ইয়েস’, রাতারগুল সবুজ সাথী যুব সংঘ’সহ বিভিন্ন সামাজিক-নাগরিক ও পরিবেশবাদী সংগঠন গণ-পদযাত্রায় অংশগ্রহণ করে।

গণ-পদযাত্রার শুরুতে সিলেটের প্রধান নদী ‘সুরমা’ তীরে অনুষ্ঠিত হয় সংক্ষিপ্ত সমাবেশ । সনাক, সিলেট-এর সভাপতি এডভোকেট ইরফানুজ্জামান চৌধুরী-এর সভাপতিত্বে জলবায়ু পরিবর্তন বিরোধী গণ-পদযাত্রার ‘ঘোষনাপত্র’ পাঠ করেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), সিলেট-এর সাধারন সম্পাদক ও সুরমা রিভার ওয়াটারকিপার আব্দুল করিম কিম । সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কবি-গবেষক এ কে শেরাম, বাপা-সিলেট শাখার সহ-সভাপতি ডঃ নাজিয়া চৌধুরী, বাংলাদেশের প্রানী অধিকার বিষয়ক সংগঠন প্রাধিকার পাবলিক রিলেশন সেক্রেটারি মনজুর কাদের চৌধুরী ,যুগ্ম সাধারন সম্পাদক হারুন অর রশিদ,বিনায়েক শর্মা, প্রাধিকার সদস্য রিয়াদ,কনাদ,আনসার,সুমন,কিরাত,মিসবাহ, অঙ্গীকার বাংলাদেশ-এর সিলেট বিভাগীয় সমন্বয়ক মঈনুদ্দিন জালাল, নাগরিক মৈত্রীর আহবায়ক এডভোকেট সমর বিজয় সী শেখর, একডো যুব সংগঠক এডভোকেট ফজলুর রহমান শিপু, সাংবাদিক ছামির মাহমুদ, পরিবেশবাদী সংগঠন ভূমিসন্তান বাংলাদেশ-এর সমন্বয়ক আশরাফুল কবীর, সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষক প্রনব কান্তি ঘোষ, টিআইবি সিলেট-এর প্রোগ্রাম ম্যানেজার সুদর্শন পাল, বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ সাইদুল ইসলাম দুলাল, হিউম্যান ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশন এর নির্বাহী পরিচালক মোঃ মনসুর আলম, এথনিক কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট ওর্গেনাইজেশন (একডো) এর নির্বাহী পরিচালক লক্ষ্মীকান্ত সিংহ, মহানগর পূজা উদজাপন পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামল সিংহ, বাংলাদেশের প্রানী অধিকার বিষয়ক সংগঠন প্রাধিকার সভাপতি মনজুর কাদের চৌধুরী ও সদস্য সাইফুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ইয়েস’-এর সংগঠক তুষার ঘোষ, সুরমা রিভার ওয়াটারকীপার-এর স্বেচ্ছাসেবী সুপ্রজিত তালুকদার, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশবাদী সংগঠন গ্রিন এক্সপ্লোর সোসাইটির সাংগঠনিক সম্পাদক তারেক আহমেদ অনিক, খাসি স্টুডেন্ট ইউনিয়ন সিলেট-এর লবিং পসনা, বিশ্ব বাড়ে, রাতারগুল সবুজ-সাথী যুব সংঘের গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ।

প্রাধিকারের পাবলিক রিলেশন সেক্রেটারি মনজুর কাদের চৌধুরী বলেন “শুধু জলবায়ু তহবিল করে লাভ নেই যদি না গ্রিনহাউস গ্যাস নিঃসরন বন্ধ না হয়।জলবায়ু পরির্তনের ফলে জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে।এখনই সময় হাল ধরার” সমাবেশের সঞ্চালনা করেন ‘ইয়েস’-এর সংগঠক মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম ।

Check Also

ক্লাইমেট রিয়ালিটি লিডারশিপ কোরপ্সঃ জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় নতুন দিনের সেনানী

গত ২২-২৪ ফেব্রুয়ারী ভারতের নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ক্লাইমেট রিয়ালিটি আয়োজিত ২৭ তম “ ক্লাইমেট রিয়ালিটি লিডারশিপ কোরপ্স ”। ক্লাইমেট রিয়ালিটি আমেরিকার সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং নোবেল বিজয়ী আল গোরের প্রতিষ্ঠিত সংস্থা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *